আট জাতীয় দিবস বাধ্যতামূলক পালনের রিট খারিজ

high_court
Share Button

অনলাইন ডেস্ক :: আটটি জাতীয় দিবস সব রাজনৈতিক দল ও নাগরিককে বাধ্যমূলক পালন করার নির্দেশনা চেয়ে দায়ের করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সোমবার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রিট খারিজ করে এ আদেশ দেন।

আদালত বলেন, নাগরিকদের এসব দিবস পালনে বাধ্য করার নির্দেশনা দেওয়া আমাদের আওতায় পড়ে না। এটা দেখার দায়িত্ব জনগণের নির্বাচিত সংসদের।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোজাম্মেল হক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

এর আগে গত বুধবার মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা, বঙ্গবন্ধু, জাতীয় চার নেতা ও শহীদ বুদ্ধিজীবীসংক্রান্ত আটটি দিবস দেশের সব রাজনৈতিক দলসহ সমস্ত নাগরিকের পালন বাধ্যতামূলক করতে নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়।

দিবসগুলো হল : বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ, ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস, ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস, ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, ৩ নভেম্বর জেলহত্যা দিবস ও ‘জয় বাংলা’ স্লোগান।

এসব দিবস সবার জন্য পালন বাধ্যতামূলক করা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত আসন্ন জাতীয় নির্বাচন স্থগিতের আরজি জানানো হয়।

রিটে এসব দিবস পালনে ব্যর্থ হলে রাজনৈতিক দলগুলোর নিবন্ধন বাতিল চাওয়া হয়। এসবের নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচন স্থগিত রাখার আবেদন জানানো হয় রিটে। সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক দলের গঠনতন্ত্রে এই আটটি দিবস পালন করার বিষয় অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোজাম্মেল হক ও মো. শহীদুল এই রিট আবেদন করেন।



« (পূর্ববর্তী সংবাদ)



সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • প্রধানমন্ত্রী ও প্রণব মুখার্জির সৌজন্য সাক্ষাৎ
  • ঢাকায় প্রণব: রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন
  • মনোনয়ন ফরম কিনলেন তাবিথ আউয়ালসহ ৫ জন
  • কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে : অর্থমন্ত্রী
  • আখেরি মোনাজাত শেষ, মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা
  • ঢাকা ছাড়লেন মাওলানা সা’দ
  • সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • বিশ্ব ইজতেমা আজ শুরু