আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের রোষাণলে উদ্বিগ্ন কালামের সংবাদ সম্মেলন

assasuni-photo-1-15-may
Share Button

জি এম মুজিবুর রহমান, আশাশুনি :: আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের মহিষকুড় গ্রামে দীর্ঘকালের ভোগদলীয় ও রেকর্ডীয় জমির মালিক আবুল কালাম প্রতিপক্ষের রোষাণল থেকে রক্ষা পেতে ্আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সোমবরা সকালে নিজ বাস ভবনে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
লিখিত বক্তব্য ও সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, মহিষকুড় গ্রামের মইনুদ্দিন ও ছিয়ামুদ্দিন মোড়ল মহিষকুড় মৌজায় দীর্ঘকাল যাবৎ এসএ ৭৪ ও ৭৭ খতিয়ানে বাদাকাটা ও ক্রয়সূত্রে প্রাপ্ত জমিতে ভোগদখল করে আসছেন। এসএ ৭৪ খতিয়ানে ২.৯৪ একর জমির মধ্যে ৬৬ শতক ২৪/৫/১৯৫৯ সালে মাহবুবর রহমানের নিকট বিক্রয় করেন এবং ৩/২/৬১ সালে ফেরৎ নেন।

এসএ ৭৭ খতিয়ানে ২.৯৬ একর জমি ৫/৬/১৯৩৪ তাং কাদের বক্স মোড়ল ব্ক্রিয় করেন আনছার দিং কাছে এবং ৬/৮/৫৫ তাং ফেরৎ নেন। পরবর্তীতে উভয় খতিয়ানের জমি মইনুদ্দিন দিং’র নামে রেকর্ড হয়। মৃত ময়নুদ্দিন মোড়লের পুত্র আঃ মাজেদ গং তাদের পিতার মৃত্যুর পর থেকে অদ্যাবধি উক্ত জমিসহ হাবিবর মোল্যার পুত্র হাসানুর গংদের নিকট থেকে ২৮/৫/১৪ তাং কোবালা দলিল মারফৎ ক্রয়কৃত ২১ শতক জমি ভোগদখল করে আসছেন। কিন্ত হাসানুর দিং তাদেরকে বিভিন্ন সময় দখল দিতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আসছিল। এব্যাপারে শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যানের আদালতে ১২/২/১৭ তাং অভিযোগ করা হলে ২১ শতক জমিতে হাসানুর গংদের না যেতে রায় প্রদান করেন। অপরদিকে ১৭/২/১৭ তাং করা পৃথক অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যান ইউপি সদস্য আক্তার হোসেনকে প্রধান করে আপোষ নিস্পত্তির জন্য কমিটি গঠন করেন।

কমিটি নিস্পত্তিতে ব্যর্থ হলে বিরোধীয় জমিতে স্থিতি অবস্থা বজায় রেখে উচ্চ আদালতের আশ্রয় নিতে ১২/৪/১৭ তাং আদেশ করেন। কিন্ত তারা উচ্চ আদালতে না গিয়ে নাশকতা মামলা জিআর ২৮০/১৩ ও আ’লীগ অফিস ভাংচুর মামলা জিআর ৫২/১৩সহ একাধিক মামলার আসামী মাকফুর রহমান বুলুর নেতৃত্বে তার বাহিনী আঃ মাজেদ দিংকে নানা ভাবে হুমকী ও মিথ্যা মামলায় জড়ানোর আস্ফালন এবং চাঁদা দাবীর পাশাপাশি হাটে বাজারে মান অপমান করার তৎপরতা চালাচ্ছে। এমনকি আঃ মাজেদ মোড়ল ও মোকছেদ গাজী সদস্য ফরম পুরনের মাধ্যমে আওয়ামীলীগের সদস্য হওয়া এবং শ্রীউলা ইউনিয়নে ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল সম্মেলন-২০০৩ এর কাউন্সিলর হওয়া স্বত্তেও তাদেরকে জামাত কর্মী/রোকন ও চাঁদা/অর্থ যোগানদাতা হিসাবে মিথ্যা অভিযোগ করার পাশাপাশি বুলু নাশকতা মামলার আসামী হওয়া স্বত্বেও মামলা থেকে অব্যাহতি পাওয়ার গল্প প্রচার করিয়েছে।

যা সম্পূর্ণ মিথ্যা দাবী করে এব্যাপারে তারা আ্ইন প্রয়োগকারী সংস্থার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন
  • আশাশুনিতে স্বাশিপ’র মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান
  • আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের নির্বাচন আজ
  • আশাশুনিতে সিএইচসিপিদের অবস্থান কর্মসূচি পালন
  • বর্ণালী বসাকের সাফল্য
  • আশাশুনিতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ২
  • আনুলিয়ায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের সুফলভোগিদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ
  • আশাশুনিতে কোল্ড ইঞ্জুরি ও ঘন কুয়াশায় বীজতলা নষ্ট ॥ কৃষকরা হতাশাগ্রস্ত