খুলনায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৯

sanghorso
Share Button

অনলাইন ডেস্ক :: খুলনার কয়রা উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভা চলাকালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে শ্রমিক লীগ সভাপতিসহ ৯ জন আহত হয়েছেন। আহতদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ (বুধবার) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের পিছনে এই ঘটনা ঘটে।

দলীয় সূত্র জানায়, কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মহসিন রেজা ও সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফির নেতৃত্বাধীন স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিবদমান দুই গ্রুপ একত্রিত হয়ে উপজেলা কার্যালয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করে।

সকাল ১০টায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা শুরু হয়। এর কিছু সময় পর সাবেক ও বর্তমান ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

একপর্যায়ে এক গ্রুপ অপর গ্রুপের উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয়। এতে ছাত্রলীগের সাবেক নেতা তরিকুল ইসলাম, শ্রমিক লীগ সভাপতি আব্দুল হালিম গাজী, সোহরাব ঢালী, মিজানুর রহমান কোহিনুর, রবিউল ইসলাম, মোজাফফর হোসেন, মাওলা গাজী, জাকারিয়া ও রায়হান আহত হন। আহতদেরকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এনামুল হক বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে সভা চলাকালে সেখানে ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দের কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে সাত জন আহত হন। সংঘর্ষের পরপরই পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তিনি বলেন, আহতদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • পাইকগাছায় এক সপ্তাহেও সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি নিখোঁজ পরীক্ষার্থী বাপ্পীর
  • মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের জীবন ও শিক্ষাজীবন
  • পরিবেশ বিপর্যয়ে উপকূলীয় পাইকগাছায় সরিষার আবাদ কম হলেও আশানুরুপ ফলনের সম্ভাবনা
  • সাউথ ওয়েষ্ট ডেভেলপমেন্ট এন্ড এডুকেশন সোসাইটির বার্ষিক সাধারণ সভা
  • যশোরে কলেজছাত্র গুলিবিদ্ধ
  • পাইকগাছায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার
  • যশোরের ঝিকরগাছায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত