জেলা পরিষদের মাসিক সভায় মীর জাকির হোসেন’র মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারসহ তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন

satkhira-news-logo-original-900
Share Button


আব্দুর রহমান ::
সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য মীর জাকির হোসেনকে জড়িয়ে ‘ইউএনও’র নামে জেলা পরিষদ সদস্যের চাঁদাবাজি, মামলা’ শিরোনামে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের তীব্র নিন্দ্র ও প্রতিবাদ সভা করেছে জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ।

জেলা পরিষদের মাসিক সভায় মীর জাকির হোসেন এর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারসহ তীব্র নিন্দা জানানো হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সদস্য মো. মতিয়ার রহমান, এম.এ হাকিম, এস.এম আসাদুর রহমান, মো. আল ফেরদৌস, মো. মনিরুল ইসলাম, শিল্পী রাণী মহালদার, শাহনওয়াজ পারভীন মিলি, রোকেয়া মোসলেম উদ্দীন, মাহফুজা সুলতানা, মো. ওবায়দুর রহমান, সৈয়দ আমিনুর রহমান, মো. নুরুজ্জামান, ডালিম কুমার ঘরামি, কাজী নজরুল ইসলাম, মো. দেলোয়ার হোসাইন প্রমুখ।

সভায় জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ বলেন, আমাদের প্রিয় সহকর্মী মীর জাকির হোসেন বর্তমানে তালা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং তালা বাজার বণিক সমিতির সভাপতি।

গত ১১ জুলাই তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমাদের প্রিয় সহকর্মীর সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য তালা থানায় প্রতারণা মূলক একটি মামলা দায়ের করে। সম্প্রতি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সুপারিশকৃত তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সীমাহীন দুর্নীতি, লুটপাট, অনিয়মের বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর তালা উপজেলার হারান সাধু ও কুমারেশ ঘোষসহ অনেক সুধীজন অভিযোগ পত্র দাখিল করেন।

অভিযোগে নির্বাহী কর্মকর্তা হারান সাধু ও কুমারেশ ঘোষের নিকট থেকে তালা সদরে নির্মাণ কাজ সুষ্ঠুভাবে কোন বাধা ছাড়াই করতে দিবে বলে তরিকুলের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। এছাড়া গত কিছুদিন পূর্বে পাটকেলঘাটা হাইস্কুলের সভাপতি পদ থেকে এমপি’র অনুমতিতে বাদ দিয়ে আমাদের প্রিয় সহকর্মীকে আহবায়ক করা হয়।

সেই থেকে এসব কারণে নির্বাহী কর্মকর্তার গাত্রদাহ শুরু হলে তার দায়ভার আমাদের সহকর্মীর উপর চাপানোর জন্য চেষ্টা করা হয়। যে ঘটনায় মামলা ও পত্র পত্রিকায় লেখালেখি হয়েছে তা আদৌ সত্য নয়। এটা মিথ্যা ও বানোয়াট। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সাথে সাথে অবিলম্বে দুর্নীতিবাজ ইউএনও’র প্রত্যাহার দাবী করেন জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ।

জেলা পরিষদের সদস্য মহিতুর রহমানের মাতার মৃত্যুতে জেলা পরিষদের শোক

সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য মহিতুর রহমানের মাতা মোছা. রহিমা খাতুন (৭০) রোববার ভোর ৫টার দিকে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. নজরুল ইসলাম, প্যানেল চেয়ারম্যান সৈয়দ আমিনুর রহমান বাবু, জেলা পরিষদের সদস্য মো. মতিয়ার রহমান, এম.এ হাকিম, মো. আল ফেরদৌস, শাহনওয়াজ পারভীন মিলি, রোকেয়া মোসলেম উদ্দীন, মাহফুজা সুলতানা, মো. ওবায়দুর রহমান, সৈয়দ আমিনুর রহমান, মো. নুরুজ্জামান, ডালিম কুমার ঘরামি, কাজী নজরুল ইসলাম, মোস্তফা কামাল মুকুল প্রমুখ।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • সাতক্ষীরা জেলা জামায়াতের প্রচার সম্পাদক আটক
  • অধ্যক্ষ আবু-আহমেদ প্রেসক্লবের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের অভিনন্দন
  • জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহিদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন
  • সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় ঐচ্ছিক তহবিলের অনুদানের চেক বিতারণ
  • সাতক্ষীরায় বধ্যভূমিতে মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনলো শিক্ষার্থীরা
  • অধ্যক্ষ আবু-আহমেদ প্রেসক্লবের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় মালিক সমিতির অভিনন্দন
  • জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা
  • সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন : সভাপতি আবু আহমেদ, সম্পাদক আব্দুল বারী