পরিবহণ শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ৬ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে ধর্মঘটের হুমকি

101844
Share Button

সিলেট প্রতিনিধি :: সিলেট জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি শ্রমিক নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম আহমদ ফলিকের উপর সন্ত্রাসী হামলাসহ ৬ দফা দাবিতে মঙ্গলবার সকালে সিলেট বিভাগ ও বি-বাড়িয়া জেলার মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকে এ প্রতিবাদ সভা ও মালিক-শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা দাবি পূরণ না হলে ১০ জানুয়ারি থেকে সিলেট বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের হুমকি দেন।

সিলেট বিভাগ শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক জমির আহমদের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব সজিব আলীর সঞ্চালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম আহমদ ফলিক।

সিলেট জেলা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির মহাসচিব কামাল আহমদ, সিলেট জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পলক আহমদ চৌধুরী, সিলেট জেলা ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয় এর সভাপতি দিলু মিয়া, কার্যকরী সভাপতি সালাম মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফুর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন হিরা,

জেলা অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং- ৭০৭ এর সভাপতি জাকারিয়া আহমদ, কার্যকরী সভাপতি সুন্দর আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহাব উদ্দিন, সিলেট জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়ন বি-১৪১৮ এর কোষাধ্যক্ষ সামছুল হক মানিক, অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন-২০৯৭ এর কার্যকরি সভাপতি মতছীর আলী।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আগামী ৯ ডিসেম্বরের মধ্যে শ্রমিকদের ৬ দফা দাবি বাস্তবায়ন করতে হবে। তা না হলে ১০ ডিসেম্বর থেকে সিলেট বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট পালিত হবে।

বক্তারা আরো বলেন, শ্রমিকলীগ নেতা প্রকৌশলী এজাজুল হক এজাজের নেতৃত্বে বিভিন্ন সময়ে পরিবহণ শ্রমিকদের উপর হামলা করা হয়। হামলায় পরিবহণ শ্রমিকরা অনেক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এজাজুল হক এজাজ শ্রমিক লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে অবৈধভাবে অনেক সিএনজি স্ট্যান্ড দখলসহ নানা অপরাধমূলক কার্যকলাপে লিপ্ত রয়েছেন।

এছাড়া শ্রমিকদের দাবির মধ্যে রয়েছে- বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম আহমদ ফলিকের উপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করা। শ্রমিক লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে সিলেট শহর সিএনজি স্ট্যান্ড দখলকারীদের ও চাঁদাবাজদের গ্রেফতার করতে হবে। জেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি প্রকৌশলী এজাজুল হক এজাজকে আইনের আওতায় এনে গ্রেফতার করা।

এস.এম.পি কোতোয়ালী থানার ওসি গৌছুল হোসেনকে প্রত্যাহার ও সিলেটের বিশ্বনাথ থানার কর্মরত টিএসআই ওয়াহিদুর রহমানকে প্রত্যাহার করা। হাইওয়ে পুলিশের চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে ও সিলেট মহানগরী থেকে হকার উচ্ছেদের নামে শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • মোটর মেকানিককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের
  • নকলায় গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি, সূর্যের দেখা নেই
  • মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংর্ঘষে নিহত ২
  • সুনামগঞ্জে দু’দল জেলের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশ সহ আহত ৬০
  • বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম সিলেটে উদ্বোধন
  • বালু খেকোদের অস্ত্রের আঘাতে আহত ২, গোলাপগঞ্জে উত্তেজনা
  • মুক্তিযোদ্ধা অনিল বর্মণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত