শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ

93661910152174297636177122563468-3077333_p9
Share Button

সাতক্ষীরা নিউজ ডেস্ক :: আজ ১৪ ডিসেম্বর। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। আমাদের জাতীয় ইতিহাসে গভীর বেদনা ও শোকের একটি দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে স্বাধীনতার শত্রুরা হত্যা করেছিল আমাদের কৃতী সন্তানদের।

চার দিকে যখন বিজয়ের রব, মুক্ত পরিবেশে মানুষ যখন রাস্তায় বের হয়ে আসতে শুরু করছে, ঘরে ফিরতে শুরু করছে, মানুষ যখন প্রাণভরে মুক্ত নিঃশ্বাস নেয়ার অনুপম আনন্দে শিহরিত হচ্ছে, বিজয়কে বরণের আনন্দে দুলছে ঠিক তখনই এই শোকাবহ ঘটনার অবতারণা ঘটাল আমাদের স্বাধীনতার শত্রুরা। বিজয়ের মাত্র দুই দিন আগে জাতির কৃতী সন্তানদের তারা বাসা থেকে ধরে নিয়ে হত্যা করল।

বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বরেণ্য ব্যক্তিত্ব তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরা শিক্ষক, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, সাংবাদিক, সাহিত্যিক ও শিল্পীদের হত্যা করা হলো বেছে বেছে, যাতে এ জাতি স্বাধীনতা পেলেও আর কখনো মাথা উঁচু করে দাঁড়তে না পারে। তাদের ধরে নিয়ে রায়েরবাজার বেড়িবাঁধ এলাকা ও মিরপুরে জড়ো করে হাত পা ও চোখ বেঁধে হত্যা করে তাদের লাশ ডোবার মধ্যে ফেলে রাখা হয়, যা এখন বধ্যভূমি নামে পরিচিত। ১৪ ডিসেম্বর তাই আমাদের জাতীয় ইতিহাসে এক শোকাবহ দিন। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস।

বুদ্ধিজীবী নিধন প্রক্রিয়ায় যারা চিরকালের জন্য নিখোঁজ হয়েছেন এবং বধ্যভূমিতে যাদের লাশ শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে তাদের অন্যতম হলেন অধ্যাপক মুনীর চৌধুরী, সাংবাদিক সাহিত্যিক শহীদুল্লাহ কায়সার, ড. জিসি দেব, অধ্যাপক জ্যোতির্ময় গুহঠাকুরতা, অধ্যাপক আনোয়ার পাশা, সন্তোষচন্দ্র ভট্টাচার্য, ড. ফজলে রাব্বী, ড. মোফাজ্জল হায়দার চৌধুরী, অধ্যাপক মুনীরুজ্জামান, অধ্যাপক গিয়াসউদ্দিন আহমেদ, ড. আলিম চৌধুরী, সাংবাদিক সাহিত্যিক সিরাজউদ্দিন হোসেন, ড. গোলাম মোর্তজা, ড. মোহাম্মদ শফি, সাংবাদিক নিজামউদ্দিন আহমেদ, লাড়– ভাই, খন্দকার আবু তালেব, আ ন ম গোলাম মোস্তফা, শহীদ সাবের, আলতাফ মাহমুদ, রশীদুল হাসান, আবুল বাশার, ড. মুক্তাদির, সায়ীদুল হাসান ও সেলিনা পারভীন। বস্তুত ১৪ ডিসেম্বরের আগে থেকেই বেশ কিছু নামকরা বুদ্ধিজীবী নিখোঁজ হতে থাকেন। তবে ১৪ ডিসেম্বর সবচেয়ে বেশি সংখ্যক বুদ্ধিজীবীকে হত্যা করা হয়। জাতির সেই কৃতী সন্তানদের স্মরণে প্রতি বছর ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে গভীর ভালোবাসা ও শ্রদ্ধায় জাতি স্মরণ করবে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের। এ ছাড়া রায়েরবাজার বধ্যভূমি স্মৃতিস্তম্ভেও পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানানো হবে শহীদদের।

স্বাধীনতার পর চলচ্চিত্রকার জহির রায়হান বড়ভাই শহীদুল্লাহ কায়সারকে খুঁজতে বের হয়ে আর ফিরে আসেননি। তিনি উদ্যোগ নিয়েছিলেন বুদ্ধিজীবী হত্যার রহস্য উদঘাটনের। তার সংগ্রহে মুক্তিযুদ্ধকালীন অনেক অমূল্য প্রামাণ্যচিত্র ছিল। ফলে স্বাধীন বাংলাদেশে জহির রায়হানের অন্তর্ধান আজো একটি বিরাট বড় রহস্য হিসেবে রয়ে গেছে, কারা কেন তাকে হত্যা করে লাশ গুম করেছে, সে বিষয়ে।

রাষ্ট্রপতির বাণী : শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলে এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ বলেন, এ দিনে আমি গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি শহীদ বুদ্ধিজীবীদের, যারা ১৯৭১ সালে বিজয়ের প্রাক্কালে হানাদার বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে শাহাদতবরণ করেন। আমি তাদের রূহের মাগফিরাত কামনা করি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারবগের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাই।’

প্রধানমন্ত্রীর বাণী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলে এক বাণীতে দেশবাসীকে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের মহান ত্যাগকে স্মরণ করে ুধা, দারিদ্র্য ও নিররতামুক্ত জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে এগিয়ে আসার উদাত্ত আহ্বান জানান।

সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বাণীতে বলেন ‘আমার ল্য জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণ করা’।

খালেদা জিয়ার বাণী : সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে এক বাণীতে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি আন্তরিক শ্রদ্ধা জানিয়ে তাদের রূহের মাগফিরাত কামনা করে বলেন, হানাদার বাহিনী মনে করেছিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের হত্যা করলেই এ দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব দুর্বল হয়ে পড়বে এবং উন্নয়ন অগ্রগতি রুদ্ধ করে দেয়া যাবে। স্বাধীনতা অর্জন করলেও বাংলাদেশ এগিয়ে যাওয়ার পথে মুখ থুবড়ে পড়বে। কিন্তু তাদের সে লক্ষ্য ব্যর্থ হয়েছে।

অমর বুদ্ধিজীবীরা দেশের বরেণ্য শ্রেষ্ঠ সন্তান, যারা একটি সমৃদ্ধ এবং মাথা উঁচু করা জাতি দেখতে চেয়েছিলেন। তারা ন্যায়বিচারভিত্তিক শোষণমুক্ত একটি গণতান্ত্রিক সমাজের প্রত্যাশা করেছিলেন। দেশের অভ্যন্তরে লুকিয়ে থাকা আন্তর্জাতিক অপশক্তি তাদের সে প্রত্যাশাকে বাস্তবায়ন হতে দেয়নি।

কর্মসূচি : শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে সরকারের পাশপাশি বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠন নানা ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকালে রাজধানীর মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে সরকারিভাবে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু হবে। এর পরেই বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সর্বস্তরের মানুষ স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের মাধ্যমে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন।

দিবসটি উপলে আওয়ামী লীগ বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এ উপলে গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ভোরে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, বঙ্গবন্ধু ভবন ও দেশব্যাপী সংগঠনের কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ। সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন এবং ৭টা ৪৫ মিনিটে বঙ্গবন্ধু ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন। এ ছাড়াও সকাল সাড়ে ৮টায় রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্য রয়েছে সকাল ৬টা ১৫ মিনিটে ভিসি ভবনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবনে কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল সাড়ে ৬টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে জমায়েত এবং সকাল ৬টা ৩৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণের কবরস্থান, জগন্নাথ হল প্রাঙ্গণের স্মৃতিসৌধ ও বিভিন্ন আবাসিক এলাকার স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের উদ্দেশ্যে যাত্রা, বেলা ১১টায় ভিসির সভাপতিত্বে ছাত্র-শিক কেন্দ্র মিলনায়তনে আলোচনা সভা। বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদসহ বিভিন্ন হল মসজিদ ও উপাসনালয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের রূহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হবে।

এ ছাড়া জাতীয় প্রেস কাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ, জাতীয় পার্টি, জাসদ, কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, বাংলা একাডেমি, জাতীয় জাদুঘর, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ’ ৭১, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, উদীচী, খেলাঘরসহ বিভিন্ন সংগঠন পৃথক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • প্রধানমন্ত্রী ও প্রণব মুখার্জির সৌজন্য সাক্ষাৎ
  • ঢাকায় প্রণব: রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন
  • মনোনয়ন ফরম কিনলেন তাবিথ আউয়ালসহ ৫ জন
  • কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে : অর্থমন্ত্রী
  • আখেরি মোনাজাত শেষ, মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা
  • ঢাকা ছাড়লেন মাওলানা সা’দ
  • সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে: প্রধানমন্ত্রী
  • বিশ্ব ইজতেমা আজ শুরু