সাতক্ষীরা পৌরসভার ইটাগাছা পূর্বপাড়া আবাসিক এলাকায় সরকারি রাস্তা ও ড্রেন দখল করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে শব্দ দূষণের অভিযোগ

Share Button

আব্দুর রহিম :: সাতক্ষীরা পৌরসভার ইটাগাছা পূর্বপাড়া আবাসিক এলাকায় সরকারি রাস্তা ও ড্রেন দখল করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার অভিযোগ ও প্রকট শব্দ দূষণে অতিষ্ট এলাকাবাসী। এব্যাপারে সাতক্ষীরা পৌর মেয়র বরাবর একটি অভিযোগ করলেও এখনও পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি পৌর কর্তৃপক্ষ।

সূত্রে জানা যায়, ইটাগাছা পূর্বপাড়া গড়েরকান্দা এলাকায় বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) অনুমোদন বিহীন
সাতক্ষীরা পিউর ড্রিংকিং ওয়াটার, মেসার্স সাতক্ষীরা ট্রেডার্স ও ওয়েল্ডিং ওয়ার্কসপের নামে প্রতিষ্ঠানটি সরকারি রাস্তা ও ড্রেন দখল করে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। এ প্রতিষ্ঠানের নীরব ঘাতক শব্দ দূষণের কবলে এলাকাবাসী।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, ৬০ ডেসিবেল শব্দে মানুষের সাময়িক শ্রবণশক্তি নষ্ট হতে পারে এবং ১০০ ডেসিবেল শব্দে চিরতরে শ্রবণশক্তি হারাতে পারে।
অনাকাঙ্খিতভাবে এ শব্দ দূষণ সৃষ্টি হয়ে আশপাশে থাকা শিশু, বৃদ্ধ ও অসুস্থ রোগীসহ প্রায় প্রত্যেকেরই সমস্যা তৈরি হয়। এ বিষয়গুলো সাতক্ষীরা পৌর মেয়রের খেয়াল রাখা উচিত বলে মনে করেন সচেতন মহল।

আবাসিক এলাকায় এ ধরনের শব্দ দূষণের ব্যাপারে জানতে চাইলে মোসলেমা খাতুন বলেন, শব্দ হয় তবে এ ধরনের শব্দ আমাদের সয়ে গেছে। এতে আমাদের কোন সমস্যা হয় না।

মো. রুহুল আমিন জানান, রাস্তা দখল করে ট্রাকে মালামাল লোড ও পুরাতন মালামাল রাস্তা ও ড্রেনের উপর রেখে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। বর্ষা মৌসুমে ইটাগাছা পূর্বপাড়াসহ এ এলাকার জলাবদ্ধতা সৃষ্টির কারণ হিসেবে চিহ্নিত প্রধান মেসার্স সাতক্ষীরা ট্রেডার্স ভাংড়ি মালামাল ও ময়লা আবর্জনায় ভরে
রেখেছে। এছাড়া ভাংড়ি মালামাল চাপাচাপির মেশিনটির প্রকট শব্দ দুষণ এবং বড় হাতুরি দিয়ে যে শব্দ করেন তাতে এলাকাবাসীর নানা ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।

এব্যাপারে আমরা পৌরসভায় একটি আবেদন করেছি। আমাদের দাবী বিকট শব্দ হওয়া এই মেশিনটি আবাসিক এলাকায় না রেখে বাণিজ্যিক এলাকায় নেওয়া হোক।

এব্যাপারে ঐ এলাকায় অবস্থিত প্রতিষ্ঠানের মালিক রবিউল ইসলাম বলেন, আমার প্রতিষ্ঠানের কারনে কারও কোন ক্ষতি হয়না। আমার বিরুদ্ধে শত্রুতামূলকভাবে পৌরসভায় অভিযোগ করেছে। সাতক্ষীরা পিউর ড্রিংকিং ওয়াটার এর বিএসটিআই, অনুমোদনের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিএসটিআই অনুমোদন নিতে হলে অনেক টাকা চায় তারা। আমার পানি সাতক্ষীরার মধ্যে সব চেয়ে ভাল। এলাকার পানি নিষ্কাশনের একমাত্র ড্রেনটি ভরাট হয়ে গেছে সে বিষয়ে তিনি বলেন, কাউন্সিলর সাহেব বিষয়টি জানেন।

এব্যাপারে পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি বলেন, পৌরসভায় একটি অভিযোগ হয়েছে। সরেজমিনে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এব্যাপারে
এলাকাবাসী ও সচেতন মহলের দাবী আবাসিক এলাকায় এ ধরনের কারখানা ও চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠা খুবই জনভোগান্তীর কারন। তাই দ্রুত সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সদয় দৃষ্টি কামনা করেছেন।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • সাতক্ষীরায় বিএনপি জামাতের নেতা-কর্মীসহ আটক ৬২
  • সাতক্ষীরা সরকারী কলেজে বার্ষিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহ উদ্বোধন
  • বাঁকাল দারুল হাদীছ আহমাদীয়া সালাফিইয়া এতিমখানায় বালিকা শাখা উদ্বোধন
  • সাতক্ষীরা জেলার মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত
  • ঝাউডাঙ্গা কলেজ অধ্যক্ষ খলিলুর রহমানের উচ্চতর প্রশিক্ষণে মালয়েশিয়া গমন
  • সাতক্ষীরায় পুলিশের অভিযানে ৩৫০বোতল ফেন্সিডিলসহ মিনি পিকআপ জব্দ
  • অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের দায়ে সাতক্ষীরায় গ্রাহককে জরিমানা
  • সাতক্ষীরায় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের হামলায় স্কুলছাত্র নিহত