১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস

Share Button

১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস। জাতি হিসাবে এ দিবসটি আমাদের কাছে প্রানের চেয়ে প্রিয়। অন্তরের সব শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা উজার করে দিবসটি পালন করছে বাংলাদেশের আপামর জনগন। বহিবিশ্বের সব বাংলাদেশীরাও শ্রদ্ধা নিবেদন করছে শহীদদের স্মৃতিতে।

দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করার জন্য সকল রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছে। জাতীয় স্মৃতিসৌধ থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নির্মিত হাজার হাজার স্মৃতিসৌধে ৭১ এর গর্বিত শহীদদের স্বরনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন ও দোয়া মোনাজাত করা হবে। দেশের আপামর জনগন এদিন নিজেদের প্রয়োজনীয় সব কাজ ফেলে রেখে শুধুই স্বরণ করবে অমর শহীদদের।

জাতীয় দিবস হিসাবে দিনটি পালন করার সাথে সাথে সকলের প্রত্যশা একটাই- আমাদের কোন কর্মকান্ডে যেন ৭১ এর অমর শহীদরা অপমানিত না হয়, তাদের জীবন বিসর্জন দেয়ার উদ্দেশ্য যেন ব্যাহত না হয়। সোনার বাংলা বিনির্মানে আমরা যেন আজীবন বাংলাদেশকে ভালোবেসে দেশ ও দশের সেবা করতে পারি।

স্বাধীনতা প্রশ্নে পাকিস্তানের গোলামী থেকে মুক্তি পেতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান তার জ্বালাময়ী ভাষনের মাধ্যমে আমাদের যে স্বপ্ন দেখিয়াছিলেন তার জন্য তাকেও জাতি আজ শ্রদ্ধার সাথে স্বরন করছে। জাতি আরোও স্মরণ করছে জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তানদের যারা আজও আমাদের মাঝে বেঁচে আছে মুক্তিযোদ্ধার খেতাব নিয়ে।

অতীতের সব গ্লানি ভুলে বাংলাদেশের বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকের পূর্ণ অধীকার প্রতিষ্ঠা হোক, মানবাধীকার সমুন্নত হোক, জনজীবন নিরাপত্তা ও শান্তিময় হোক এই প্রত্যাশায় সকলকে বিজয় দিবসের শুভেচ্ছাসহ অভিনন্দন জানাই।