বন্ধু যখন হনুমান

Share Button

অনলাইন ডেস্ক :: ‘জঙ্গল বুক’ মনে আছে? প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে মুগ্ধ রিওয়ার্ড কিপলিং সৃষ্ট মোগলিতে। সে টারজানের মতো বীর নয়, কিশোর ছেলেটি নিজের ভালবাসা দিয়েই জয় করে নিয়েছিল জঙ্গলের হৃদয়। সেই মোগলিকেই মনে করাল কর্ণাটকের দু’বছরের খুদে সমর্থ বাঙ্গারি। তাকে ঘিরে রাখে হনুমানের দঙ্গল। পুরো এলাকা রীতিমতো ভক্ত হয়ে উঠেছে এই বাস্তবের মোগলির।

এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, এই আশ্চর্য শিশুটির কথা। মানুষের ভাষা এখনও তার পুরো আয়ত্ত্বে আসেনি। কেননা, তার বয়সই যে মাত্র দুই। কিন্তু এইটুকু বয়সেই হনুমানদের কাছে সে পৌঁছে দিয়েছে তার ভালবাসার ভাষা।

উত্তরপ্রদেশের বাহরিয়াক জঙ্গল থেকে দশ-এগারো বছরের একটি মেয়েকে উদ্ধার করা হয়েছিল বছরের গোড়ায়। জঙ্গলের বাসিন্দা ওই মেয়ে হনুমানদের সঙ্গে থাকতে থাকতে ভুলে গিয়েছিল মানুষের ভাষা। সমর্থের ঘটনাটা কিন্তু তেমন নয়। সে জঙ্গলে থাকে না। থাকে বাবা-মা’র সঙ্গে, গ্রামেই। তার সঙ্গে দেখা করতে হাজির হয় কপিকুল। কোনওদিনই সেই মোলাকাত মিস হয় না তাদের। এমনই সম্পর্ক।

কী করে হল এমন সম্পর্ক! প্রথম প্রথম সকলেরই ভয় হয়েছিল দৃশ্যটা দেখে। এক খুদেকে ঘিরে রেখেছে ডজন দুয়েক হনুমান! যদি আঁচড়ে কামড়ে দেয়! কিন্তু আশ্চর্যের বিষয়, সে সব কিছুই ঘটেনি। বরং ধীরে ধীরে তারা হয়ে ওঠে ছোট্ট সামর্থের বন্ধু।

মা-বাবা মাঠে কাজে গেলে দিনের বেশ খানিকটা সময় এই হনুমানদের সঙ্গেই কাটে সমর্থের। কর্ণাটকের ধারওয়া জেলার আল্লাপুরের বাসিন্দা সমর্থ ঘুমিয়ে থাকলে এই হনুমানরাই ডেকে তোলে তাকে। নিজের খাবারের অংশ সে তুলে দেয় হনুমানদের হাতে। দূর থেকে মুগ্ধ হয়ে সে দৃশ্য দেখেন গ্রামবাসীরা।

একবার সমর্থের সঙ্গে ছিল আর এক খুদে। কিন্তু হনুমানরা তাকে মোটেই পছন্দ করেনি। উল্টে তারা আক্রমণাত্মক হয়ে উঠছিল। আসলে সমর্থের সঙ্গে যে রসায়ন, তা অন্যদের সঙ্গে নেই তাদের।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • ২ লক্ষ টাকা ছিনতাই করে পালাল বানর!
  • একটি কলাগাছে ৩৫টি মোচা!
  • পাত্রপক্ষের দাবি নগ্ন সেলফি, না হলে বিয়ে বাতিলের হুমকি!
  • বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তির মৃত্যু
  • বিড়াল যখন মাছ বিক্রেতা!
  • ঘুমন্ত শিশুকে নিয়ে পালাল বানর, অতঃপর…
  • জাল টাকার নোট চেনার ৯টি সহজ উপায়
  • অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে তিমি’র মেলা