কলারোয়ায় বোরো আবাদে ব্যস্ত কৃষকরা

Share Button

আরিফ মাহমুদ ::
শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে বোরো আবাদে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কলারোয়া উপজেলার কৃষকরা।

ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পাওয়ার টিলার ও গরু লাঙ্গলের মাধ্যমে চাষ দিয়ে জমি তৈরি করছেন তারা। দিন-রাত জমিতে সেচ দেয়া, আদর্শ বীজতলা থেকে চারাতলাসহ বোরো ধান চাষের নানা কাজে ব্যস্ত কৃষকরা।

সরকার সার, ডিজেল ও কীটনাশকের দাম কমালে ধান চাষ ও ফলন করে লাভের মুখ দেখবেন এমটাই প্রত্যাশা কৃষকদের।

উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের কয়েকজ কৃষক জানান- সার, ডিজেল দাম বর্তমান সরকার যদি কমিয়ে দেয় তাহলে আমাদের ভাল হতো। আমাদের কোনো বছর লাভ হয়, কোনো বছর লোকসান হয়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা জানান- এবার হাইব্রিড আবাদ বৃদ্ধি পাবে। বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকার সারের দাম কমিয়ে এখন কৃষকদের ক্রয় ক্ষমতার নাগালে নিয়ে এসেছে।

কৃষি কাজে সংশ্লিষ্টরা জানান- বর্তমানে সরকার নির্ধারিত দামে টিএসপি প্রতি কেজি ২২ টাকা, এমওপি ১৫টাকা ও ডিএপি ২৫ টাকা কেজি হিসাবে বাজারে বিক্রি হচ্ছে। বিগত ত্বত্তাবধায়ক সরকারের সময় টিএসপি ৮৫ টাকা, ডিএপি ছিল ৯৫ টাকা ও এমওপি ৭০ টাকা কেজি। সেই তুলনায় সারের মূল্য এখন কৃষকের নাগালের মধ্যে আছে।

তবে কীটনাশকের দাম মার্কেটে কিছুটা বেশি।

সংশ্লিষ্টরা আরো জানান- কীটনাশক বেসরকারি ভাবে ও বিভিন্ন কোম্পানি বাজারজাত করছে। ভেজাল, নকল, বা মেয়াদোত্তীর্ণ বিক্রয় হচ্ছে কিনা সেটা কৃষি কর্মকর্তারা নিয়মিত মনিটরিং করলেও সুবিধাভোগী ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন টালবাহানা করে। সেচের বিদ্যুৎ বিলে বর্তমান সরকার ২০% রিবেট দিয়ে থাকে। কৃষকরা বিদ্যুৎতের মোট বিলের ২০ শতাংশ মাফ পাচ্ছেন।

কৃষিবান্ধব সরকার উৎপাদনের যাবতীয় উপকারণ যতটা সম্ভব সহজলভ্য করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন বলে উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়।



« (পূর্ববর্তী সংবাদ)



সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • সাতক্ষীরা বিনেরপোতায় কৃষকদের অংশগ্রহণে লবণ সহিষ্ণু ধানের জাত নির্বাচন অনুষ্ঠিত
  • কলারোয়ায় করোথ্রিন ১০ইসি ব্যবহার করে ৪০ বিঘা জমির ধানে ব্যাপক ক্ষতি
  • কলারোয়ায় বোরো ধানের বাম্পার ফলন, লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে
  • সুন্দরবন উপকূলীয় জনপদে তরমুজ চাষে কৃষকদের বিপ্লব
  • আশাশুনিতে বোরো ধানের বাম্পার ফলন॥ উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে
  • দেবহাটায় বোরো ধানের জাতীয় পার্চিং উৎসব
  • মান্দায় সরিষা ফুল থেকে মধু সংগ্রহে লাভবান মৌচাষিরা