দুই হাতের আঙুল নেই, তবুও থেমে নেই টিটুর শিক্ষাজীবন

Share Button

সেলিম হায়দার ::
দুই হাতের আঙুল নেই, তাতে কি হয়েছে! জীবন যুদ্ধে থেমে থাকেনি প্রতিবন্ধী মেধাবী ছাত্র মেহেদী হাসান টিটুর শিক্ষা জীবন। টিটু চলতি বছর অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় সাতক্ষীরার তালা বিদে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে অংশগ্রহণ করেছে। সে তালা উপজেলার সুভাষিণী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র এবং জাতপুর গ্রামের চায়ের দোকানদার ফারুক খাঁর ছেলে।

তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ফরিদ হোসেন বলেন, মেহেদী হাসান টিটু একজন মেধাবী ছাত্র। তার দুই হাতের আঙুল নেই তবুও চমৎকার লেখা। বাংলা পরীক্ষায় খুব ভালো পরীক্ষা দিয়েছে ছেলেটি। তালা বিদে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনকালে বিষয়টি দৃষ্টিতে আসলে তিনি কিছুক্ষণ তার পাশে দাঁড়িয়ে দেখেন। ছেলেটির হাতের লেখা অত্যন্ত চমৎকার। পরীক্ষাও দিচ্ছে খুব ভালো।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরো জানান, টিটু শুধু একজন মেধাবী ছাত্রই নয়, সে একজন প্রতিবন্ধী ভালো ক্রিকেটার। সে জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রিকেট দলের ৩০ সদস্যের একজন।

মেহেদী হাসান টিটু জানায়, “আমার পরীক্ষা খুব ভালো হচ্ছে। দুই হাতের আঙুল না থাকলেও লিখতে আমার কষ্ট হয় না। এখন অভ্যস্ত হয়ে গেছি। আশা করছি সবগুলো পরীক্ষা ভালো হবে এবং সেইসঙ্গে পরীক্ষার ফলাফলও খুব ভালো হবে।”

সুভাষিণী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রেজাউল ইসলাম বলেন, টিটু একজন মেধাবী ছাত্র। ছোট বেলা থেকে দু’হাতের আঙুল না থাকলেও সে ভালো লিখতে পারে। এছাড়া ক্রিকেটে অলরাউন্ডার হিসেবে সে জাতীয় প্রতিবন্ধী কোটায় ইতিমধ্যে স্থান করে নিয়েছে।