মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট গ্রেপ্তার

Share Button

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: মালদ্বীপে গ্রেপ্তার হয়েছেন দেশটির প্রধান বিচারপতি আব্দুল্লাহ সাঈদ।

দেশটির সরকার সেখানে ১৫ দিনের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করে সংসদ স্থগিত করে দেয়ার পরপরই গ্রেপ্তার হয়েছেন তিনি।

জরুরী অবস্থা ঘোষণার পরপরই শুরু হয় ধরপাকড়। খবর বিবিসির

রাতে সুপ্রিম কোর্ট ঘিরে রেখেছে পুলিশ। আদালতে যেসব বিচারপতিরা ছিলেন তারা সবাই সেখানে আটকে রয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

আরো আটক করা হয়েছেন মালদ্বীপে প্রায় তিন দশক ধরে ক্ষমতায় থাকা সাবেক রাষ্ট্রপতি মামুন আব্দুল গাইয়ুম।

রাজনৈতিক বন্দীদেরকে মুক্তি দেবার জন্য সম্প্রতি মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্ট যে আদেশ দিয়েছে সেটিকে মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লা ইয়ামিন।

প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনকে অভিশংসনে ও গ্রেপ্তারে সুপ্রিম কোর্টের পদক্ষেপ রুখতেই এত কিছু হচ্ছে বলে ধারনা।

এছাড়া আরেকজন সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে চলমান আরো একটি মামলাকেও অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করেছিলো সুপ্রিম কোর্ট।

হুট করে মালদ্বীপে জারি করা জরুরী অবস্থা প্রত্যাহার করার জন্য জোর দাবী জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র বিষয়ক সেক্রেটারি বরিস জনসন।

আর অ্যামেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এক টুইট বার্তায় হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, মালদ্বীপে কি হচ্ছে সারা দুনিয়া সেদিকে খেয়াল রাখছে।

বিবিসির সংবাদদাতা অলিভিয়া ল্যাঙ জানাচ্ছেন, মালদ্বীপে মানুষ ভীত-শঙ্কিত অবস্থায় আছে।



« (পূর্ববর্তী সংবাদ)



সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • ৬৬ আরোহী নিয়ে ইরানি বিমান বিধ্বস্ত
  • অং সান সু চির ১৫ বছরের কারাদণ্ড!
  • দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার পদত্যাগ
  • এরদোগান পরিবারের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের সত্যতা পাওয়া যায়নি
  • ইন্দোনেশিয়ায় পর্যটকবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ২৭
  • পাকিস্তানেও নিষিদ্ধ হচ্ছে ‘একসঙ্গে তিন তালাক’
  • দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের বাসভবনে উ. কোরিয়ার প্রতিনিধিদল
  • মধ্যরাতে এক যুবতীর কাছে ৫ যুবকের পরাজয়