নলতা শরীফে আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ওরছ শরীফ

Share Button

মনিরুজ্জামান মহসিন ::
অবিভক্ত বাংলার শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক, শিক্ষা ও সমাজ সংস্কারক, শতাধিক গ্রন্থের রচয়িতা, বিশিষ্ট দার্শনিক, সাহিত্যিক, অসাম্প্রদায়িক চেতনার অধিকারী, বিংশ শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ মানব দরদী, “স্রষ্টার এবাদত ও সৃষ্টের সেবা” এ মহান ব্রতকে সামনে রেখে নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনসহ অসংখ্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা, সুফী-সাধক,পীরে কামেল সুলতানুল আউলিয়া কুতুবুল আকতাব গওছে জামান আরেফ বিল্লাহ হজরত শাহ্ছুফী আলহাজ্জ খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা (র.) এঁর ৫৪ তম বার্ষিক ওরছ শরীফ ৮,৯,১০ ফ্রেব্রুয়ারি ২০১৮ খ্রি. এবং ২৬,২৭,২৮ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ ৩দিন ব্যাপী বার্ষিক ওরছ শরীফ যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা শরীফে শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় আখেরী মোনাজাতের মধ্যদিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের সার্বিক ব্যস্থাপনায় এবং পাক রওজা শরীফের শ্রদ্ধেয় খাদেম ও বার্ষিক ওরছ শরীফ উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক আলহাজ্জ মৌলভী আনছার উদ্দিন আহমদ’র বিশেষ দিক নির্দেশনায় অন্যান্য বছরের ন্যায় এবছরের বার্ষিক ওরছ শরীফের আখেরী মোনাজাত অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় আহছানিয়া মিশনের সভাপতি আলহাজ্জ মুহাম্মদ সেলিমউল্লাহ’র সভাপতিত্বে আলোচনা রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন নলতা কেন্দ্রীয় আহছানিয়া মিশনের সহ-সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্জ অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক, মিশনের সহ-সভাপতি ও ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের সভাপতি আলহাজ্জ কাজী রফিকুল আলম, মিশনের সহ-সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মুনসুর আহমেদ, সহ-সভাপতি ও প্রকৌশলী আলহাজ্জ কাজী আলী আযম, বাংলা একাডেমির সাবেক পরিচালক ড. গোলাম মঈনুদ্দিন, সাবেক যুগ্ম-সচিব ডা. খলিলউল্লাহ, জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো: মহিউদ্দিন, কালিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্জ শেখ ওয়াহেদুজ্জামান, সমাজকল্যান মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবু মাসুদ, কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার গোলাম মাঈনউদ্দিন হাসান, আলহাজ্জ আ.রাজ্জাক, কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আলহাজ্জ মো. সাইদুর রহমান, কর্মকর্তা আলহাজ্জ চৌধুরী আমজাদ হোসেন, মো. মালেকুজ্জামান, আলহাজ্জ মুহাম্মদ ইউনুস, আলহাজ্জ ডা. আকবার হোসেন, অধ্যক্ষ মো. রিয়াজুল ইসলাম, আলহাজ্জ আবুল ফজল, আলহাজ্জ মো. এনামুল হক খোকন, আলহাজ্জ ডা. আবুল কাশেম, মো. শফিকুল হুদা, আলহাজ্জ আলমগীর হোসেন, আলহাজ্জ একরামুল রেজা, ডা. মো. নজরুল ইসলাম, মো. আনছার আলী, মো. শফিকুল আনোয়ার রঞ্জু, আলহাজ্জ মহসীন হালদার, মো. আনোয়ারুল হক, ইকবাল মাসুদ, আলহাজ্জ মো. আবু দাউদ, মাওলানা আব্দুল মোমিন, আলহাজ্জ হাফেজ শামছুল হুদা, হাফেজ হাবিবুর রহমান সহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারী, দেশ-বিদেশ থেকে আগত প্রায় ২ শত আহ্ছানিয়া শাখা মিশনের কর্মকর্তা, সদস্য, ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, সরকারী-বেসরকারী অন্যান্যা কর্মকর্তাবৃন্দ তথা বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার পীর কেবলার লক্ষাধিক নারী-পুরুষ ও শিশু ভক্ত।

আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক ওরছ শরীফ শেষ হচ্ছে। এখন পীর কেবলার আস্তানা ছেঁড়ে যেতে হবে ভেবে ভক্তদের মাঝে রান্নার রোল পড়ে যায়। আল্লাহ আল্লাহ ধ্বনিতে নলতা শরীফ এলাকার বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। সর্বত্র বিরাজ করতে থাকে ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশ। আখেরী মোনাজাতে ভক্তদের সরব উপস্থিতিতে নলতা পাক রওজা শরীফ, মাহফিল মাঠ, রাস্তাঘাট সহ আশপাশের এলাকা পরিণত হয় আহ্ছান ভক্তদের মিলন মেলায়।

দেশের স্থিতিশীলতা, আহ্ছান ভক্ত তথা মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে প্রায় আধাঘন্টা ব্যাপী দোয়া পরিচালনা করেন নলতা শরীফ শাহী জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্জ মাওলানা মো. আবু সাঈদ রংপুরী। দোয়ার পূর্বে পীর কেবলার মাজার শরীফে সরকারি চাদর পেশ করা হয়।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • শাহপুরে ৪র্থ বার্ষিক তাফসিরুল কুরআন মাহফিল
  • উচ্চতর প্রশিক্ষণের জন্য তালা মুক্তিযোদ্ধা কলেজ অধ্যক্ষের বিদেশ গমন
  • তালায় শুদ্ধ জাতীয় সংগীত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
  • তালায় পুকুরে ডুবে এক শিশুর করুণ মৃত্যু
  • তালায় কেঁচো সার ব্যবহার করে ফসল চাষ বিষয়ক মাঠ দিবস
  • তালায় আমার সংবাদের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উৎযাপন
  • তালার খলিলনগর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নবনির্মিত ভবনে ফাঁটল