সাতক্ষীরায় ধর্ষন চেষ্টার দায়ে সাত বছর কারাদন্ড

Share Button

সাতক্ষীরা নিউজ ডেস্ক ::
ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে সাত বছর কারাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার সাতক্ষীরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক হোসনে আরা আক্তার আসামির অনুপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিশেষ পিপি এড. জহুরুল হায়দার জানান ২০০৯ সালের ২৬ আগস্ট আশাশুনি উপজেলার বড় দুর্গাপুর গ্রামের অজয় দাসের ছেলে উজ্জ্বল কুমার দাস বেলা তিনটায় একই গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী মারুফা খাতুনের ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এ ঘটনায় মারুফা খাতুন আশাশুনি থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর জিল­ুর রহমান আসামির বিরুদ্ধে চার্জশীট দেন।

আদালত এই মামলায় চারজনের সাক্ষ্য গ্রহন করেন। বিচারক হোসনে আরা আক্তার পলাতক আসামি উজ্জ্বল কুমার দাসকে সাত বছর কারাদন্ড দেন। একই সাথে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদন্ড দেন। সরকার পক্ষে এ মামলা পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিশেষ পিপি এড. জহুরুল হায়দার।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • জামিন পেলেও এখনই মুক্তি পাচ্ছেন না খালেদা
  • খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে শুনানি শেষ, আদেশ কাল
  • ২৮ জুনের মধ্যে গাজীপুর সিটিতে ভোটের নির্দেশ
  • গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আপিলের শুনানি আজ
  • হাইকোর্টের অাদেশের বিরুদ্ধে আপিল শুনানি বৃহস্পতিবার
  • রাবির শিক্ষক হত্যা: ২ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ, ৩ জনের যাবজ্জীবন
  • বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলায় খালেদার শুনানি ২৬ জুন
  • গাজীপুরে হত্যা মামলায় ১৩ আসামির ফাঁসি