দাকোপে নবযাত্রা প্রকল্পের যুব উন্নয়ন সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

Share Button

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ::
“আমেরিকান সরকারের আন্তজার্তিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি) এর ফুড ফর পিস (টাইটেল ২) খাদ্য সহায়তা কার্যক্রমের অর্থায়নে নবযাত্রা একটি পাঁচ বছর মেয়াদী প্রকল্প যা ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে শুরু হয়েছে এবং ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে শেষ হবে।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর নেতৃত্বে নবযাত্রা প্রকল্প অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম, উইনরক ইন্টারন্যাশনাল এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পটি বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম উপকূলীয় খুলনা জেলার দাকোপ ও কয়রা এবং সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ ও শ্যামনগর উপজেলার ৮,৫৬,১১৬ জন উপকারভোগীর মা, শিশুস্বাস্থ্য ও পুষ্টি, নিরাপদ পানি, পয়ো:নিস্কাশন ও স্বাস্থ্যবিধি, কৃষি ও বিকল্প জীবিকায়ন, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা, নারী-পুরুষ সাম্য, সুশাসন ও সামাজিক দায়বদ্ধতার উন্নয়নের জন্য বাস্তবায়িত হচ্ছে। স্থানীয় অংশীদার সংস্থা সুশীলন, নবযাত্রা কর্মসূচীর সুশাসন, জেন্ডার ও যুব উন্নয়ন এবং গ্র্যাজুয়েশন কার্যক্রমের সঞ্চয়ী দল সম্পর্কিত কার্যাবলী বাস্তবায়ন করছে।

উপজেলা পর্যায়ে স্থানীয় যুবদের সমস্যা ও চাহিদা নিরুপন করে সে সমস্ত সমস্যার সমাধান ও চাহিদানুযায়ী তাদের প্রশিক্ষণ প্রদান ও প্রয়োজনীয় লোনের ব্যবস্থা করে স্বাবলম্বী করে তোলা ও যুবদের মাধ্যমে সামাজিক ও অর্থনৈতিক পরিবর্তন আনায়ন করে কিভাবে যুবদের সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলা যায় সেজন্য নবযাত্রা প্রকল্পের আওতায় ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের নের্তৃত্বে সুশীলন ০৭ জুন ২০১৮ তারিখে দাকোপ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সকাল ১০.০০ টায় যুব উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত আয়োজন করে। উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দাকোপ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মো: মারুফুল ইসলাম।

প্রধান অতিথি তার বক্তৃতায় বলেন, উপকূলীয় অঞ্চলে দাকোপ উপজেলায় নবযাত্রা প্রকল্পের আওতায় যুবদের নিয়ে এরকম সময় উপযোগী উদ্যেগ গ্রহনের জন্য নবযাত্রা প্রকল্পকে স্বগত জানাই। নবযাত্রা প্রকপ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে আগামী দিনে সমন্বিত ভাবে কাজ করলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে আমি সকল ধরনের সহযোগিতা করবো। যুবদের বর্তমান যে সমস্যাগুলো রয়েছে তার মধ্যে মাদকাসক্তি অন্যতম। এছাড়াও যুবরা গুনগত মানসম্পন্ন শিক্ষা গ্রহন করতে না পেরে দিন দিন কর্মসংস্থানের অভাবে নানা ধরনের অপরাধ মূলক কাজের সাথে সম্পক্তৃ হচ্ছে। কারিগরি শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে উপজেলায় সরকারি অফিস গুলোর মাধ্যমে তাদের কে লোন প্রদানের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের আয় রোজগার মূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত করতে পারলে যুবরা সম্পদে পরিনত হবে এবং স্থানীয় বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সমস্যা নিরসনে কাজ করতে পারলে সমাজ এগিয়ে যাবে।

সভায় উপস্থিত উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগন নিজ নিজ দপ্তরাধীন বিভিন্ন সেবা সমূহের বিবরণ দেন এবং যুবদের প্রয়োজনীয় সকল ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ, সংবাদকর্মী ও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে অগত ৬০ জনের অধিক যুবক ও যুব নারীগন। যুবরা কর্মকর্তাদের সাথে তাদেও বিভিন্ন সমস্যা ও চাহিদার কথা তুলে ধরেন।

সভা পরিচালনা করেন নবযাত্রা প্রকল্পের ইয়ুথ ডেভলপমেন্ট স্পেশালিষ্ট মো: আশিক বিল্লাহ






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • নলতা শরীফ ফ্যান্স ক্লাবের আয়োজনে ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত
  • নলতাসহ আশেপাশের এলাকায় ঈদের জামাতের সময় সূচি
  • হযরত খানবাহাদুর আহছানউল্লা (র:) একজন আলোকবর্তিকা মানুষ ছিলেন : রুহুল হক এমপি
  • কালিগঞ্জে একটি ব্যাবসায়ী প্রতিষ্ঠানে লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি
  • নলতা শরীফ প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত
  • নলতা শরীফে বিশ্বের ২য় বৃহত্তম ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত
  • কালিগঞ্জে যায়যায়দিন পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত