ব্রাজিল, স্পেন ও জার্মানিকে নিয়ে যা বললেন মেসি

Share Button

বিশ্বকাপ শুরু হতে এক সপ্তাহও বাকি নেই। তার আগে এক স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিককে দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে বার্সেলোনা থেকে বিশ্বকাপ— সব নিয়েই বললেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিয়োনেল মেসি।

‘এই ভাবে চলতে পারে না। তিনবার কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিলাম আমরা। এই বাধাটা আমাদের টপকাতেই হবে। আরও একটা বছর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বার্সেলোনার অধরা থেকে যাবে, এটা হতে দেওয়া যায় না। বার্সেলোনা ক্লাবের সেটা প্রাপ্যও নয়। পরের বছর আমাদের চ্যাম্পিয়ন হতেই হবে। রোমার কাছে হারের পরে আমাদের খুব রাগ হয়েছিল। ওরা অবশ্য খুব ভাল খেলেছিল। কিন্তু আমাদের এই ভাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নেওয়াটা মেনে নিতে পারিনি’- জানান মেসি।

আর্জেন্টিনার অধিনায়ক জানান, আমিও অবাক হয়েছি। কেউ ভাবতেই পারেনি ওই ভাবে রিয়াল ছেড়ে দেবে জিদান। ওর ব্যক্তিগত কোনও কারণ নিশ্চয়ই ছিল। তবে ঘটনা হল, জিদান খুব ভাল অবস্থাতেই সরে গেল। রিয়ালের ম্যানেজার থাকাকালীন ও সব রকম ট্রফি জিতেছে। জিদান সম্পর্কে কোনও খারাপ কথা কেউ বলতে পারবে না।

রিয়ালে রোনালদোর ব্যাপারটা? আমি জানি না কী হবে। এটাও বলতে পারব না রোনাল্ডো রিয়ালে থাকবে কি না। ওর ব্যক্তিগত ব্যাপার এটা। আমি এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে পারব না।

গ্রিজম্যান দুর্দান্ত ফুটবলার। আমি এটা সব সময় বলে এসেছি। বড় ফুটবলার হলে তাদের পক্ষে অন্যদের খেলাটা ধরে নেওয়া সহজ হয়। গ্রিজম্যান এই মুহূর্তে দারুণ একটা সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।

গ্রিজম্যান এলে ওটা কোচের কাজ হবে ওকে কী ভাবে খেলাবে, তা ঠিক করা। জানি, গ্রিজম্যান আসা মানে ব্যাপারটা দাঁড়াবে আমি, গ্রিজম্যান, সুয়ারেস, দেম্বেলে, কুটিনহো। তার পরে কোচকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে গ্রিজম্যান এখনও একশো শতাংশ নিশ্চিত নয়। আমরা বিশ্বের সেরা দল হতে চাই। তাই সেরা ফুটবলারদেরই দলে চাইব। তার পর বাকিটা কোচ বুঝে নেবে।

অবশ্যই আমি চাইব, নেইমার বার্সেলোনায় ফিরে আসুক। ও দুর্দান্ত ফুটবলার। কিন্তু জানি সেটা হওয়া খুব কঠিন। তবে আমি কিছুতেই চাইব না, রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিক নেইমার।

জানি, বিশ্বকাপে অনেকের সঙ্গেই লড়াই হবে। বেশ কয়েক জন সতীর্থের সঙ্গে এই ব্যাপারটা নিয়ে আমি কথা বলেছি। ওরা বিভিন্ন দেশের হয়ে বিশ্বকাপে খেলবে। তবে সবার আগে আমাদের গ্রুপের প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডকে হারাতে হবে। আইসল্যান্ড খুব লড়াকু দল। ওদের ডিফেন্সটা খুব ভাল। খুব সংগঠিত ফুটবল খেলে।

ব্রাজিলের নেইমার আর কুটিনহো (ফিলিপে) আছে। স্পেনের আছে আন্দ্রে ইনিয়েস্তা ও দাভিদ সিলভা। জার্মানির কোনও ব্যক্তিগত তারকা হয়তো সে ভাবে নেই, কিন্তু দল হিসেবে ওরা খুব ভাল। এর পর ধরুন বেলজিয়াম। ওদের এডেন অ্যাজার্ড এবং কেভিন দ্য ব্রুইন খুব ভাল ফুটবলার। ফ্রান্সের আছে কিলিয়ান এমবাপে, গ্রিজম্যান। এই বিশ্বকাপে অনেক দলেই খুব ভাল ফুটবলার আছে।

আমি একটা ব্যাপার নিয়ে খুব গর্ববোধ করছি। বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষ চান আমি যেন বিশ্বকাপটা হাতে তুলি। এটা সত্যিই গর্বিত হওয়ার মতো একটা ব্যাপার।

জাভি (হার্নান্দেজ) কাতারে গিয়েছে, ইনিয়েস্তা জাপানে। আমি কী করব? এখনও ঠিক করিনি। নিউয়েলসে ফুটবল জীবন শেষ করব কি না, এখনও জানি না। দেখা যাক, কী হয়।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • পেরুকে বিদায় করে নকআউট পর্বে ফ্রান্স
  • শ্যামনগরে মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ
  • জিততেই হবে আর্জেন্টিনাকে
  • কস্তার গোলে জয় পেল স্পেন
  • আশাশুনি ওসি’র সাথে মোস্তাফিজের শুভেচ্ছা সাক্ষাৎ
  • মিসরকে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে রাশিয়া
  • পানামার বিরুদ্ধে সহজ জয় পেল বেলজিয়াম
  • আর্জেন্টিনার পর প্রথম ম্যাচে ড্র করল ব্রাজিলও