চীনের উপর নতুন করে শুল্ক বসানোর হুমকি ডোনাল্ড ট্রাম্পের

Share Button

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: চীনের উপর নতুন করে আরো কুড়ি হাজার কোটি ডলারের আমদানি শুল্ক বসানোর হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সোমবার রাতে এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেছেন, যদি চীন নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন না করে তাহলে ১০ শতাংশ শুল্ক বসানো হবে। খবর বিবিসির।

এই বক্তব্যের ফলে দেশ দুটির মধ্যে চলমান বাণিজ্য যুদ্ধের আশংকা আরো বেড়ে গেল।

বিশ্বের এক নম্বর এবং দুই নম্বর অর্থনীতির মধ্যে এই বাণিজ্য যুদ্ধের পরিণতি নিয়ে বিশ্ব জুড়ে উদ্বেগ গভীর থেকে গভীরতর হচ্ছে।

ট্রাম্প আগে থেকে বলে আসছেন, চীনের কাছে বাজার খুলে দিয়ে আমেরিকার ক্ষতি হয়েছে।

তিনি এক হিসাব দিয়ে বলেছেন যে ২০১৭ সালে আমেরিকার বাণিজ্য ঘাটতি ছিল ৮০০ বিলিয়ন বা আশি হাজার কোটি ডলার।

আর এই ঘাটতির প্রধান কারণ চীনের সাথে বাণিজ্যে ক্রমবর্ধমান ভারসাম্যহীনতা।

চীন দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্য ঘাটতির সুযোগে ‘অন্যায্য’ ভাবে সুবিধা নিচ্ছে বলে তিনি বলছেন।

গত সপ্তাহে তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, চীন থেকে যুক্তরাষ্ট্রে আমদানি করা পাঁচ হাজার কোটি ডলারের পণ্যের ওপর ২৫ শতাংশ হারে আমদানি শুল্ক আরোপ করা হবে।

জবাবে চীন জানিয়েছিল, যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি করা সমপরিমাণ পণ্যের ওপর তারাও শুল্ক আরোপ করবে।

ট্রাম্প সেই হুমকির জবাবে বলেছিলেন, চীন মার্কিন কোম্পানি, শ্রমিক এবং কৃষকদের ওপর ‘বদলা’ নিতে চাইছে, যারা কোন দোষ করেনি।

সর্বশেষ তিনি পাল্টা হুমকি দিয়ে বললেন, বেইজিং যদি মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসানোর সিদ্ধান্ত থেকে সরে না আসে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র আরো শুল্ক বসাবে।

জুলাই মাস থেকে নতুন শুল্ক আরোপ হতে যাচ্ছে।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • কারাগারে যেসব সুবিধা পাচ্ছেন নওয়াজ ও তার মেয়ে
  • বিমানবন্দরে নামতেই কন্যাসহ গ্রেপ্তার নওয়াজ শরীফ
  • পাকিস্তানে নির্বাচনী সভায় আত্মঘাতী হামলা, প্রার্থীসহ নিহত ৮৫
  • জাপানে বন্যা-ভূমিধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০৯
  • তুরস্কে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০
  • পিকেকে নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত ইরাকে অভিযান চলবে: এরদোগান
  • দুর্নীতি মামলায় নওয়াজ শরীফকে ১০ বছর কারাদণ্ড
  • তুরস্কে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা বাড়িয়ে ডিক্রি জারি