আগামী সংসদ নির্বাচন হবে সংবিধান অনুসারে: বাণিজ্যমন্ত্রী

136

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে ক্ষমতাসীন দলের অধীনে সংবিধান অনুসারে। নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। বিএনপি যদি জোর জবরদস্তি করতে চায় তা পারবে না। নির্বাচন হবে এই সরকার ক্ষমতায় থেকে। পালামেন্ট ও থাকবে নির্বাচনও হবে। আর কোন সংলাপও নেই। কারন ২০১৪ সনের নির্বাচনের সময় প্রধানমন্ত্রী ডেকে ছিলো, তারা আসেনি। প্রধান মন্ত্রী বলেছিলেন,তাদের ৫ টা মন্ত্রনালয় দিবে। বলেছিলেন, নির্বাচন কমিশন পুর্নগঠন করবে। এখন সংলাপ সংলাপ করে। এখন আর সংলাপের কোন সম্ভাবনা নেই। নির্বাচন করতে হবে ক্ষমতাসীন দলের অধীনে। নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন।

শুক্রবার (৩ আগষ্ট) সকালে ভোলার গাজীপুরস্থ তার নিজ বাসভবনে ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের এক কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, ২০১৩ সালের সিটি কর্পরেশন নির্বাচনে ৫ টিতে জিতেও বিএনপি জাতীয় সংসদ নির্বাচন করেনি। তার খেসারত তাদের এখনও দিতে হচ্ছে। এবার যদি নির্বাচন না করে খেশার আরো বেশী দিতে হবে। কারন বিএনপি নামক দলটার অস্তিত্ব থাকবে না।

তিনি আরো বলেন আন্দোলনরত ছাত্র সমাজ ঘরে ফিরে যাবে। তারা এমনকিছু করবে না যাতে করে সুনাম নষ্ট হয়। প্রধানমন্ত্রী খুব দয়ালু নেতা নিহতের পরিবারকে ৪০ লাখ টাকা দিয়েছেন, এবং বলেছেন শিক্ষার্থীদের দাবী মেনে নেওয়া হবে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় উপস্তিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বাহালুল মোল্লা, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব ও এনামুল হক আরজু, সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, সদর উপজেলা আওয়ালীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম , ভোলা পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলী নেওয়াজ পলাশ সহ মতবিনিময় সভায় ভোলা সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নেতকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন ..