কলারোয়ায় পর্দা উঠলো তিনদিন ব্যাপি উন্নয়ন মেলার

253

কামরুল হাসান,কলারোয়া থেকে: ‘উন্নয়নের অগ্রযাত্রায়, অদম্য বাংলাদেশ’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারা দেশের সাথে একযোগে কলারোয়া উপজেলা ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা । পরে উন্নয়ন মেলার বর্ণাঢ্য র‌্যালি শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ।
এ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলমগীর হুসাইন।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন, কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মারুফ আহম্মদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও ভোমরা সিএন্ডএফ’র নবনির্বাচিত সভাপতি আলহাজ্ব আরাফাত হোসেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার গোলাম মোস্তফা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা আনোয়ার ময়না, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক এম এ ফারুক, অধ্যক্ষ ইউনুচ আলি।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হামিদ সরদার, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হাসান, ইউপি চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন হাবিল, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ইমরান হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান মফে, এলজিইডি প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা কৃষি অফিসার মহাসীন আলী, সমবায় কর্মকর্তা নওশের আলী, নির্বাচন অফিসার মাসুদুর রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবদুল হামিদ, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা বজলুর রহমান, শিক্ষা অফিসার আকবার আলি, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুন নাহার আক্তার, কলারোয়া থানার ওসি (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন, প্রধান শিক্ষক বদরুজ্জামান বিপ্লব, কলারোয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রধান শিক্ষক রাশেদুল হাসান কামরুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, কোষাধ্যক্ষ এম এ সাজেদ, মাস্টার সাইফুল ইসলাম, রির্পোটার্স ক্লাবের সভাপতি আজাদুর রহমান খাঁন চৌধুরী পলাশ, সহ.সভাপতি জাকির হোসেন, কলারোয়া বার্তার সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম লিটন, সাংবাদিক ফিরোজ জোয়ার্দ্দার, আকবার আলী, দুপ্রক কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রধান শিক্ষক মুজিবুর রহমান, ডাঃ মেহের উল্লাহ, পল্লী বিদ্যুত সমিতির পরিচালক সাইফুল্লাহ আজাদ, হাজী মিনাজ উদ্দীন, পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তাবৃন্দ, পৌরসভার কর্মকর্তাবৃন্দ,সকল সরকারি-বেসরকারি অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান, সাংবাদিক, ছাত্র-ছাত্রী এবং সরকারি সুফলভোগি অসংখ্য ব্যক্তিবর্গ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সমাজসেবা কর্মকর্তা শেখ ফারুক হোসেন। ৩দিন ব্যাপি শুরু হওয়া মেলায় ৪৬টি সুদৃশ্য স্টল দেয়া হয়েছে বলে জানায় উপজেলা প্রশাসন।

শেয়ার করুন ..