সাতক্ষীরা-৩: তৃণমূল আওয়ামী লীগের পচ্ছন্দের শীর্ষে ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ

272

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন দরজায় কড়া নাড়ছে। বিভিন্ন আঙ্গিকে হিসাব নিকাশ শুরু হয়েছে ভোটের রাজনীতিতে। সারা দেশের মতো নির্বাচনী আবহ তৈরি হয়েছে সাতক্ষীরার নির্বাচনী আসনগুলোতেও।

চারটি সংসদীয় আসনের মধ্যে সাতক্ষীরা-০৩ আসন বর্তমানে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। এ আসনে “স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব, শান্তি, উন্নয়ন ও অগ্রগতির প্রতিক” নৌকার পক্ষে মনোনয়নের দৌড়ে রয়েছেন বেশ কয়েকজন প্রার্থী। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ’র প্রফেসর ও নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি খুলনা’র উপাচার্য ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ।

ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ একাধারে একজন শিক্ষাবিদ, কলামিস্ট, সমাজসেবক ও শিল্পদ্যোক্তা। স্থানীয় তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মতে তিনিই এবার এই আসনে নৌকার পক্ষে মনোয়নয়ন পাবেন। এলাকাবাসীর মতে একজন ক্লিন ইমেজের ব্যাক্তিকেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মনোনয়ন দেবেন। দুর্নীতির দায়ে বর্তমান সাংসদ দারুণভাবে সমালোচিত। কাজেই এবার তাঁর মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা। সেক্ষেত্রে আওয়ামীলীগ থেকে এই আসনে ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ’র মনোনয়ন প্রাপ্তি প্রায় নিশ্চিত বলে মনে করছেন তারা।

ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহকে এলাকার তরুণ সমাজ তাদের রোল মডেল মনে করে। তরুণ প্রজন্মের ভাষ্যে তিনি সাতক্ষীরার অহংকার। প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হিসেবে এলাকাবাসীর কাছে তিনি সম্মানীয়। তাঁর পিতা স্থানীয় পিএন হাইস্কুলের স্বনামধন্য শিক্ষক ও সাতক্ষীরা জেলায় মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক তিনি। এলাকার মুক্তিযোদ্ধাদের নিকট তাই ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ’র পরিবার অতীব শ্রদ্ধার। মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধিরাও এবার ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহকেই এলাকার সাংসদ হিসেবে পেতে চাইছেন।

শুধু দানশীলতা নয়, সৎ পথে থেকে জনগণের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে নিজের ভাবনাকে অধিকতরভাবে জনমানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছেন ড. আবু ইউসুফ মোঃ আব্দুল্লাহ। তাই সাতক্ষীরা-০৩ আসনে আওয়ামী লীগ’র মনোনয়ন প্রত্যাশী ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ পক্ষে নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

সাতক্ষীরা-৩ আসনসহ জেলার সামগ্রিক উন্নয়নে যোগ্যতার বিচারে তাকে সংসদ সদস্য হিসাবে দেখতে চায় সাধারণ মানুষ। শুধু তাই নয়, আওযামীলীগের তৃণমূল পর্যাযের নেতাকর্মীরাও। সাতক্ষীরা-৩ আসনের উন্নয়ন ও অগ্রগতিকে আরো এগিয়ে নিতে এবং জেলার সামগ্রিক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মোঃ আবদুল্লাহর বিকল্প নেই বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ ও তৃণমূল পর্যাযের নেতাকর্মীরা।

সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. গোলাম মোস্তাফা তাঁর অভিমত ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, ইউসুফ আব্দুল্লাহ নিজ এলাকাতে এসে রাজনীতিতে অংশ নেয়ায় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি দলীয় নেতা কর্মীদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করেন। তাদের নিয়ে সভা সমাবেশে অংশ নিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের উন্নয়নমুখী রাজনীতি ও তাঁর সাফল্য এবং ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগ সরকারকে পুনরায় ক্ষমতায় আনার জন্য সমর্থন সৃষ্টিতে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের তৃণমূলে নেতাকর্মীরা মনে করছেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের আসনটি ধরে রাখতে হলে ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ’র কোনো বিকল্প নাই। আশাশুনি-দেবাহাটা- কালিগঞ্জ এর একাংশের আওয়ামী লীগের তৃণমূলে পচ্ছন্দের শীর্ষেও রয়েছেন ড. আবু ইউসুফ মো: আব্দুল্লাহ।

তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আরও বলেন, ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ’র যে আকাশচুম্বি জনপ্রিয়তা রয়েছে তা সার্বিকভাবে মূল্যায়নের মাধ্যমে তাঁর হাতে নৌকার প্রতীক তুলে দিলে বিপুল ভোটে জয়ী হবেন। তাই ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ’র হাতে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রতীক তুলে দেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে অনুরাধ জানান তারা।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন ও দেশ পরিচালনায় তাঁর সফলতার দশ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে স্থানীয় নেতাকর্মীদের উদ্দীপনায় ড. ইউসুফ আব্দুল্লাহ’র নেতৃত্বে আয়োজিত হয় সাতক্ষীরার ইতিহাসে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ মটর শোভাযাত্রা। এ শোভাযাত্রায় সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে।

শেয়ার করুন ..