পাহাড়ের গায়ে ধাক্কা, ভেঙে পড়ল বিমান, মৃত ২০

86

সুইৎজারল্যান্ডে পাহাড়ি এলাকায় ভেঙে পড়ল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার একটি ছোট বিমান। জাঙ্কার্স ৫২ গোত্রের এই বিমানটি দুর্ঘটনায় পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। বিমানে থাকা ২০ জনেরই মৃত্যু হয়েছে বলে সুইস প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। পাহাড়ি উপত্যকায় উদ্ধার হয়েছে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ। মৃতদের আত্মার শান্তি কামনা করে পরিজনদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছে বিমান পরিচালনা সংস্থা জেইউ।

সুইস সংবাদমাধ্যম ও প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, সুইৎজারল্যান্ডের পশ্চিম সীমান্তের লোকার্নো শহর থেকে জাঙ্কার্স ৫২ এইচবি এইচওটি বিমানটি জুরিখের কাছে ডুবেনডর্ফ বিমানঘাঁটিতে যাচ্ছিল। বিমানে ছিলেন ১৭ জন যাত্রী, দুই পাইলট এবং এক কর্মী। সেই সময়ই একটি পাহাড়ের গায়ে ধাক্কা লাগে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২৪৫০ মিটার উপরে পাহাড়ি উপত্যকার মাঝে ভেঙে পড়ে বিমানটি।

খবর পেয়েই হেলিকপ্টারে ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করেন নিরাপত্তা কর্মীরা। কিন্তু কাউকেই জীবীত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে জেইউ-এর সমস্ত উড়ান।

সুইস এই বিমান পরিচালন সংস্থা মূলত অ্যাডভেঞ্চার টুরিজমের জন্য এই জাঙ্কার্স বিমান ব্যবহার করে। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কালে তৈরি এই বিমানগুলি বাতিল করে দিয়েছে সুইস বায়ুসেনা। অনেক পুরনো বলে এই গোত্রের বিমানকে সে দেশে ‘আন্টি জু’ বলেও ডাকা হয়। অ্যাডভেঞ্চার টুরিজমে পদে পদে বিপদের ঝুঁকি রয়েছে। সেই ক্ষেত্রেই এই ধরনের পুরনো বিমান কেন ব্যবহার করা হচ্ছিল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

শেয়ার করুন ..