“শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নয়”

912

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে যুক্ত হওয়া শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে যাতে কোনো প্রকার শাস্তিমূলক ব্যবস্থা না নেয়া হয় সে জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশনা দেয়া হবে বলে জনিয়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন।

বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ রাজধানীর সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন। ওই বৈঠকেই এ নির্দেশনা দেয়া হবে বলে রোববার জাগো নিউজকে জানান সচিব।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সঙ্গে আলাপকালে সচিব বলেন, নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতের দাবি সব মানুষের। সেই দাবিতেই শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামে। তাই যারা আন্দোলনে যুক্ত হয় তাদের বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া যাবে না। তাদের টিসি বা আর্থিক জরিমানা করা যাবে না।

তিনি বলেন, এ আন্দোলনকে দেশের মানুষ সাধুবাদ জানিয়েছে। সরকার প্রধানও তা মেনে নিয়েছেন এবং তা বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। তাই শাস্তি না বরং ফুলের মালা দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করা উচিত।

শিক্ষার্থীদের এখন ক্লাসে ফিরে যাওয়া উচিত উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ আন্দোলন আর চালিয়ে যাওয়া ঠিক হবে না। শিক্ষার্থীদের যে উদ্দেশ্য ছিল তা সফল হয়েছে। এ আন্দোলন দীর্ঘ হলে জনগণের ভোগান্তি এবং বিরক্তি বাড়বে। তখন জনগণই আন্দোলনের বিপক্ষে চলে যাবে। সেই সঙ্গ শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখার ক্ষতি হবে।

গত ২৯ জুলাই ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।

এরপর বৃহস্পতিবার অঘোষিত ধর্মঘট শুরু করেন পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা। গাড়ি ভাঙচুরের কারণে নিরাপত্তা না থাকায় চালকরা বাস চালাতে চাচ্ছেন না বলে জানান মালিকরা। ফলে গণপরিবহন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ।

শিক্ষার্থীদের গড়ে ওঠা এই আন্দোলন ও উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ঢাকা মহানগরীর সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষের সঙ্গে বিকেল ৩টায় এবং ৫টায় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার করুন ..