দ্বিতীয় দিনে মনোনয়ন বৈধ হল যাদের

206

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীদের আপিলের শুনানি চলছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে এ শুনানি শুরু করে নির্বাচন কমিশন।

আজ ১৬১-৩১০ নম্বর সিরিয়ালের প্রার্থীদের আপিল আবেদনের শুনানি ও নিষ্পত্তি হচ্ছে। সেই সঙ্গে গতকালের পেন্ডিং থাকা ৪ জনের শুনানিও আজ হবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদাসহ অন্য নির্বাচন কমিশনাররা শুনানি করছেন। প্রতিটি আবেদনের আপিল শুনানি শেষে সঙ্গে সঙ্গেই রায় জানিয়ে দিচ্ছে কমিশন।

শুনানির দ্বিতীয় দিনে বেশ কয়েকজন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। আবার আপিলেও ব্যর্থ হয়েছেন অনেকে। নির্বাচন কমিশনের চূড়ান্ত রায়ে বেশ কয়েকজনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে গেছে।

আপিলে যারা প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন-

আবদুল খালেক ও জিয়া উদ্দিন (বিএনপি) বাহ্মণবাড়িয়া-৬

মুসলিম উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪

হাসান মাহমুদ চৌধুরী চট্টগ্রাম-৮

আবু আহমেদ হাসনাত চট্টগ্রাম-৭

আলতাফ হোসাইন কুমিল্লা-১

গিয়াস উদ্দিন (স্বতন্ত্র) বাহ্মণবাড়িয়া-২

মেহেদী হাসান (ইসলামী ঐক্যজোট)ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫

খোরশেদ আলম চট্টগ্রাম-৮

একে ফাইয়াজুল হক বরিশাল-২

নির্বাচন কমিশনের পুনঃতফসিল অনুযায়ী ৩০ ডিসেম্বর ভোট হবে। গত ২৯ নভেম্বর ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। এরপর গত রবিবার মনোনয়নপত্র বাছাই করা হয়।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে সারা দেশে ৭৮৬ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এদের মধ্যে বিএনপি, আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থীও রয়েছেন।

প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন ৫৪৩ প্রার্থী। প্রথম দিনে ৮৪, দ্বিতীয় দিনে ২৩৭ ও তৃতীয় দিনে ২২২টি আবেদন নির্বাচন কমিশনে (ইসি) জমা পড়ে। তবে ইসির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেননি ২৪৩ প্রার্থী।

আজ থেকে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীদের আপিলের শুনানি ও নিষ্পত্তি করা হচ্ছে। ধারাবাহিকভাবে এ কার্যক্রম শেষ হবে শনিবার।

বৃহস্পতিবার ১-১৬০ পর্যন্ত আপিলের নিষ্পত্তি করা হয়। এতে ৮০ জন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। বিএনপির ৩৯ জন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।চারটি আবেদন পেন্ডিং রাখা হয়।

আজ শুক্রবার ১৬১-৩১০ পর্যন্ত আর শানিবার ৩১১-৫৪৩ পর্যন্ত বাতিল হওয়া মনোনয়ন প্রার্থীর আপিলের নিষ্পত্তি করা হবে।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, ক্রমিক অনুসারে আপিলের নিষ্পত্তি করা হবে। আপিলের ফল সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেয়া হবে। কোনো প্রার্থীর আপিল গ্রহণ করা হলে, তা সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানিয়ে দেয়া হবে।

শেয়ার করুন ..