আশাশুনির থানাঘাটা ভেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে ৫ গ্রাম প্লাবিত

508

জি এম মুজিবুর রহমান ::
আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের থানাঘাটা পাউবো’র ভেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ৭০০ মৎস্য ঘের ভেসে গেছে এবং ৪০০ ঘরবাড়ি জলমগ্ন হয়েছে।

শ্রীউলা ইউনিয়নের থানাঘাটা গ্রামে পানি উন্নয়ন বোর্ডের দীর্ঘদিনের জরাজীর্ণ ভেড়ী বাঁধ রবিবার দুপুর ১ টার দিকে জোয়ারের পানির চাপে ভেঙ্গে যায়। মুহুর্তের মধ্যে বাঁধটি ভাঙ্গতে ভাঙ্গতে ৮০/৯০ ফুট মত চওড়া হয়ে যায়। প্রচন্ড গতির পানি ভিতরে ঢুকে একে একে থানাঘাটা, বকচর, মাড়িয়ালা, বিল বকচর ও নাকতাড়া গ্রামের ৩/৪ শত ঘরবাড়ি পানিতে নিমজ্জিত হয়ে যায়। এসব এলাকার বিলের ৬/৭ শত চিংড়ী মাছের ঘের ভেসে যায়। হঠাৎ পানির তোপের মুুখে এলাকার অনেক মানুষ তাদের সহায়-সম্বল উদ্ধার করতে পারেনি। ফলে কোটি কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে এবং ঘরবাড়ি নিমজ্জিত হওয়ায় যেকোন সময় ভাংতে শুরু করতে পারে।

ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল এরিপোর্ট লেখা (বিকেল ৫ টা) পর্যন্ত উপরোক্ত তথ্যের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এখন ভাটা চলছে। সহ্রসাধিক মানুষ কাজে লাগিয়ে তিন শতাধিক বাঁশ ব্যবহার করে প্রাথমিক ভাবে বাঁধ রক্ষার কাজ করা হচ্ছে। বাঁশ গেড়ে (পুতে) ও বস্তায় মাটি/বালি ভরে ফেলে বাঁধ রক্ষার চেষ্টা করা হচ্ছে। দ্রুত সরকারি ভাবে সহায়তা না দিলে বাঁধ রক্ষা ও এলাকার হাজার হাজার মানুষের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনা সম্ভব হবেনা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাফফারা তাসনীন বলেন, বাঁধ ভেঙ্গে মৎস্য ঘের প্লাবিত ও ৩ শতাধিক ঘরবাড়ি নিমজ্জিত হয়েছে, তবে এখনো ঘরবাড়ি ভাঙ্গেনি। বাঁধ রক্ষায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে কাজ চলছে। আশা করছি পানি ঢোকা বন্ধ করা যাবে। ডিসি স্যারকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে, সহযোগিতার আবেদন করা হয়েছে। দ্রুত সহযোগিতা পাওয়া যাবে।

শেয়ার করুন ..