নেপালকে হারিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

233

নেপালকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করলো বাংলাদেশ। ৩-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বাংলাদেশের কিশোরীরা। একটি করে গোল করেছে তহুরা খাতুন, মারিয়া মান্দা ও সাজেদা খাতুন। ফাইনালে উঠার আগে বাংলাদেশকে টপকাতে হবে আরেকটি বাঁধা। এখন বাংলাদেশের সামনে একমাত্র প্রতিপক্ষ হচ্ছে স্বাগতিক ভুটান।

‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। গ্রুপের সেরা হওয়ায় তারা শেষ চারে লড়বে ‘এ’ গ্রুপের রানার্স আপ ভুটানের বিপক্ষে। স্বাগতিকদের বিপক্ষে তারা মাঠে নামবে ১৬ আগস্ট। তার আগে প্রথম সেমিফাইনালে ভারত মুখোমুখি হবে নেপালের।

প্রথমার্ধের খেলায় বাংলাদেশকে তেমন সুবিধা করতে দেয়নি হিমালয় কন্যা নেপাল। বারবার সুযোগ নষ্ট করে দিয়েছে তারা। বারবার আক্রমণে গিয়েও একটির বেশি গোল আদায় করতে পারেনি তারা। বাংলাদেশকে ঠেকাতে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডাররা মরিয়া ছিল। ৪৩ মিনিটে নেপালের একটি ফ্রি কিকের শট পোস্টে লেগে ফিরে আসে।

বিরতিতে যাওয়ার আগের মুহূর্তে গোল পায় তারা। বাঁ প্রান্ত থেকে অধিনায়ক মারিয়ার কর্নারের বল দেওয়া-নেওয়া করে ঘুরে আসে তার কাছেই। ডিবক্সের বাইরে থেকে মারিয়ার ক্রসেই পোস্টের সামনে থেকে ফরোয়ার্ড তহুরা খাতুন হেডে লক্ষ্যভেদ করেন। এটি ছিল টুর্নামেন্টে তার তৃতীয় গোল।

বিরতির পর বাংলাদেশের একের পর আক্রমণের কাছে দাঁড়াতে পারেনি নেপাল। ৫১ মিনিটে তহুরার শট নেপালি ডিফেন্ডার প্রতিহত করলে ফিরতি বল পান মারিয়া। বাঁ পায়ের জোরালো শটে গোলকিপারকে পরাস্ত করে ২-০ গোলে বাংলাদেশকে এগিয়ে দেন অধিনায়ক।

অপরদিকে ৬৭ মিনিটে ডিফেন্ডার আঁখি খাতুনের লম্বা পাস ধরে সাজেদা খাতুন প্রতিপক্ষের একজন ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে ডিবক্সে ঢোকে পরেন। নেপালের গোলরক্ষক তাকে ঠেকাতে সামনের দিকে এগিয়ে আসেন। কিন্তু বাংলাদেশি ফরোয়ার্ড তার বাঁ পাশ দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন। সাজেদারও এটি ছিল তৃতীয় গোল।

শেয়ার করুন ..