অন্ধকারে স্মার্টফোন অন্ধত্ব ডেকে আনে!

234

অন্ধকারে স্মার্টফোন ব্যবহার করলে যেমন অনিদ্রা হতে পারে তেমনই চোখের বিভিন্ন সমস্যাও দেখা দিতে পারে। হানা দিতে পারে অন্ধত্বও। অতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহারের ফলে চোখ ছাড়াও শরীরের অন্য স্থানেও নানা সমস্যা হতে পারে।

মোবাইল ফোন আমাদের দৈনন্দিন জীবনযাত্রাকে খুব সহজ করে দিয়েছে, সন্দেহ নেই। কিন্তু এর ওপর আমরা ভীষণ ভাবে নির্ভরশীল হয়ে পড়েছি। অজান্তেই নিজেদের বিপদ ডেকে আনছি। ধরুন রাতের বেলায় ঘুমাতে গেছেন কিন্তু ঘুম আসছে না। ভাবলেন যতক্ষণ ঘুম না আসে ততক্ষণ ফোনটা ঘাঁটাঘাটি করি, ফেসবুকিং করি কিংবা ভিডিও দেখি—আস্তে আস্তে ঘুম এসে যাবে। দীর্ঘক্ষণ পরে দেখলেন, সময় গড়িয়ে গেল। কিন্তু ঘুম আর এলো না।

গবেষকরা বলছেন, রাতের অন্ধকারে স্মার্টফোনের নীল আলো চোখের আলো সহনশীল ক্ষুদ্র কোষের মধ্যে ঢুকে বিষাক্ত অনু জমতে সাহায্য করে। পরবর্তীতে তা চোখের ম্যাকুলারকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। যুক্তরাষ্ট্রের টলেডো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় এমন কথা বলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের অন্ধত্বের অন্যতম প্রধান কারণ ম্যাকুলার বিচ্ছেদ। তবে ম্যাকুলার বিচ্ছেদের কারণে মানুষ পুরাপুরি অন্ধ না হলেও তার প্রাত্যহিক কাজকর্ম বাধাগ্রস্ত হয়।

টলেডো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলেছেন, অন্ধকারে নীল আলোক রশ্মি আমাদের চোখের রেটিনাকে ক্ষতিগ্রস্ত করে থাকে। এছাড়া অন্ধকারে মোবাইল একনাগাড়ে দেখে গেলে চোখের পেশিতে চাপ সৃষ্টি হয়। আলোতে এই পেশিগুলো যতটা সহজে ছোট হরফের লেখা দেখতে পারে অন্ধকারে তত সহজে দেখতে পারে না। বাড়তি চাপের ফলে অকুলার অস্থেনোপিয়া হতে পারে। যার পরিণতিতে মাথা ব্যথা এবং বাচ্চাদের ক্ষেত্রে টেরা ভাবও আসতে পারে।
-টাইমস অব ইন্ডিয়া

শেয়ার করুন ..