এবারের ঈদযাত্রা হবে আরামদায়ক : কাদের

167

গত ঈদের চেয়েও এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তি ও আরামদায়ক হবে বলে মনে করেন,আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ঈদযাত্রায় এবার যাত্রীদের অভিযোগ কম পাওয়া যাচ্ছে বলেও দাবি করেন মন্ত্রী। শুক্রবার বেলা ১১টায় রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন ও ঈদযাত্রীদের সাথে কুশল বিনিময় শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান, বিআরটিএ ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক মো. মাসুদ আলম, ট্রাফিক উত্তরের এডিসি নাজমুল আলম, মহাখালী ট্রাফিক পুলিশের সহকারী কমিশনার আশরাফ উল্লাহ প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

মহাখালিতে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তি ও আরামদায়ক হবে। রাস্তায় যেসব স্থানে সমস্যা ছিল তা সমাধান করা হয়েছে।

যান জট নিরসনে সরকারের নেয়া বিভিন্ন কাজের কথা তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন ‘প্রধানমন্ত্রী ২৩টি সেতু উদ্বোধন করেছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল পথে অন্যান্য সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। রাস্তায় খোড়াখুঁড়ি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনী রেল ওভারপাসের কারণে গত ঈদের সময় কিছুটা সমস্যা হয়েছিল, এটাও এবার খুলে দেয়া হয়েছে। তাই ঈদযাত্রা এবার স্বস্তিদায়ক হবে, সহনীয় হবে ভোগান্তি।’

এ সময় সাংবাদিকদিদের তিনি আরো জানান, এবার ঈদের ১০ দিন আগেই সড়কের কাজ ও খোঁড়াখুঁড়ি বন্ধ করা হয়েছে। শুধুমাত্র পশুবাহী পরিবহন যদি সঠিক লেন মেনে চলাচল করে তবে আর সমস্যা হবে না বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

পশুবাহী যানবাহন যথাযথ জায়গায় রাখার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পশুবাহী গাড়িগুলো যথাযথভাবে রাখলে এবং ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় না নামালে আর কোথায় কোনো সমস্যা থাকবে না।

ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সোচ্চার রয়েছে দাবি করে মন্ত্রী বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ অব্যাহত রেখেছে। এর বাইরে বিআরটিএর ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর মহাখালী বাস টার্মিনাল পরিদর্শনকালে সিরাজগঞ্জের এক নারী যাত্রী স্টারলিট ক্লাসিক নামে একটি পরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার অভিযোগ করেন। এ সময় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমানসহ ওই কাউন্টারে যান মন্ত্রী। তবে মন্ত্রী যাওয়ায় খবরে পরিবহনটির কাউন্টার বন্ধ রাখা হয়। পরে মন্ত্রী সেটা বন্ধের নির্দেশ। এ সময় অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, তাৎক্ষণিক অভিযোগেই আমি ব্যবস্থা নিয়েছি। এছাড়া আর কোনো অভিযোগ পাইনি। আমাদের এখানে যাত্রীদের সেবাদানে ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে। যাত্রীদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে। অভিযোগ পেলেই তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন ..