ভোমরা ইউনিয়নের হাড়দ্দহ আদর্শ গ্রামে মাঠ দিবসে বক্তারা

171

আব্দুর রহিম : বিনা কর্তৃক উদ্ভাবিত স্বল্পমেয়াদী ক্ষরা সহিষ্ণু উচ্চ ফলনশীল আউশ ধানের জাত বিনাধান-১৯ সম্প্রসারণের লক্ষ্যে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১৮ আগস্ট) বিকালে সদরের ভোমরা ইউনিয়নের হাড়দ্দহ আদর্শ গ্রামে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট বিনা উপকেন্দ্র সাতক্ষীরার আয়োজনে ও পুষ্টি নিরাপত্তা কর্মসূচির অর্থায়ণে বিনা উপকেন্দ্র সাতক্ষীরার বৈজ্ঞানিক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আল আরাফাত তপুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সাতক্ষীরা উপপরিচালক ভারপ্রাপ্ত কৃষিবিদ মো. নুরুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. আমজাদ হোসেন, উপসহকারি কৃষি অফিসার মো. সোহরাব হোসেন ও কৃষক হাফিজুল ইসলাম প্রমুখ।

এসময় বক্তরা বলেন, ‘স্বল্পসময়ে অধিক ফলন পেতে বিনাধান-১৯ এর বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার অল্প জমিতে বেশি উৎপাদনের জন্য প্রযুক্তির ব্যবহার করতে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। বিনা-১৯ এর জীবনকাল কম হওয়ায় কৃষকরা ৪টি ফসল উৎপাদন করছে। বিঘা প্রতি ১৫ মন ধান পাওয়া যায়। সেজন্য কৃষকরা বিনা-১৯ এর প্রতি আগ্রহী হচ্ছে।

আউশ মৌসুমে বিনা ধান-১৯ চাষাবাদ করে কৃষকরা একটি অতিরিক্ত ফসল ঘরে তুলতে পারছে। এই ধানের বীজ বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট বিনা উপকেন্দ্র সাতক্ষীরা সরবরাহ করবে। এ মাঠ দিবসে এলাকার শতাধিক কৃষক-কৃষাণী উপস্থিত ছিলেন।

সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উসহকারি কৃষি অফিসার সীমান্ত দাশ।

শেয়ার করুন ..